দ্বাদশ কম্পিউটারউচ্চ মাধ্যমিককম্পিউটারকম্পিউটার শিক্ষার আসর

নেটওয়ার্কিং ও ইন্টারনেট সম্পর্কিত গুরুত্বপূর্ণ প্রশ্ন ও উত্তর

নেটওয়ার্কিংঃ  এক বা একাধিক স্বতন্ত্র বা স্বাধীন কম্পিউটার যখন নির্দিষ্ট মাধ্যমের দ্বারা যুক্ত হয়ে নিজেদের মধ্যে তথ্যের আদান প্রদান করে, তখন কম্পিউটারগুলির মধ্যে সংযোগ স্থাপন কে নেটওয়ার্কিং বলে।
এই পোস্টে নেটওয়ার্কিং অধ্যায়ের বিভিন্ন বই থেকে সকল ধরনের প্রশ্ন শেয়ার করা হল। আশা করি সকল উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষার্থীদের কাজে আসবে। [ নেটওয়ার্কিং ও ইন্টারনেট সম্পর্কিত গুরুত্বপূর্ণ প্রশ্ন ও উত্তর Part -৩]

নেটওয়ার্কিং ও ইন্টারনেট সম্পর্কিত গুরুত্বপূর্ণ প্রশ্ন ও উত্তর Part- 1

সঠিক উত্তরটি বেছে নিয়ে লেখো

. কেবল বা তারের মাধ্যমে একাধিক কম্পিউটার যুক্ত করাকে ___ বলে?

a.DBMS

b. Network

c.Circuit

d.Transmission

ans:-b.Network

২.নেটওয়ার্কের সফল ব্যবহারের উদাহরণ হল                                                                                                                     a.প্রয়োজনীয় ফাইল বা দকুমেন্ট আদানপ্রদান

b.ইনটারনেটের মাধ্যমে দ্রব্য কেনাবেচা

c.ব্যাঙ্কিং পরিষেবা(CBS বা Core Banking System)

d.সব ক-টি স্যুইচ

ans:-d. সব ক-টি স্যুইচ

৩. কোনো সিগন্যালের ওয়েভের বিস্তারের পরিমাপ করা হয়_________ এর মাধ্যমে

a.ফ্রিকোয়েন্সি অ্যামপ্লিচ্যুড

b. অ্যামপ্লিচ্যুড

c.ফেজ

d. কোনোটিই নয়

ans:-b. অ্যামপ্লিচ্যুড

. কোনো ইলেকট্রনিক সিগন্যালের বিশিষ্ট                                                                                                                                         a.অ্যামপ্লিচ্যুড

b. ফ্রিকোয়েন্সি

c.ফেজ

d. সব ক-টি

ans:-d. . সব ক-টি

. অ্যানালগ সিগন্যালের একটি ব্যবহার হল

a.Voice Communication

b.Text Communication

c. a ও b উভবই

d.কোনোটিই নয়

ans:- a.Voice Communication

.   অ্যানালগ সিগন্যালের সুবিধা হল

a.অডিয়ো ও ভিডিও উভয় ডেটা প্রদান করা যায়

b.অ্যানালগ প্রসেস করা সহজ

c.A ও b উভয়ই

d.কোনোটিই নয়

Ans:-c. A ও b উভয়ই

. অ্যানালগ সিগন্যাল গঠিত হয়_____ দ্বারা

a.0, 1

b.Electromagnetic wave

c.a ও b উভয়ই

d. কোনোটিই নয়

ans:- b.Electromagnetic wave

.ওয়েভফর্মএর ক্ষেত্রে কোনো সিগন্যাল প্রতি সেকেন্ডে যতগুলি ওয়েভ তৈরি করে, তাকে____ বলে

  1. Frequency
  2. Amplitude
  3. Phase
  4. কোনোটিই নয়

Ans:- 1. Frequency

. ডিজিটাল সিগন্যাল ____ –এর সমন্বয়ে তৈরি হয়

  1. Electromagnetive wave
  2. 0,1
  3. Voice ও Data
  4. কোনোটিই নয়

Ans:-2. 0,1

১০. নেটওয়ার্কের সুবিধা হল

  1. কম সময় ও কম খরচে তথ্যের আদানপ্রদান করা যায়
  2. কম্পিউটারের যন্ত্র, প্রিন্টার, স্ক্যানার, ইত্যাদি শেয়ার করা যায়
  3. মোট মেমোরির পরিমাণ বৃদ্ধি পায়
  4. সব ক-টি

Ans:-4. সব ক-টি

১১. নেটওয়ার্কের অসুবিধা হল

  1. নিরাপত্তা কম
  2. খরচ সাপেক্ষ
  3. A ও b উভয়ই
  4. কোনোটিই নয়

Ans:-3. A ও b উভয়ই

১২. নেটওয়ার্কে ব্যবহৃত যন্ত্রগুলিকে বলে

  1. Node
  2. Liker
  3. User
  4. Connector

Ans:-1. Node

১৩. নেটওয়ার্কে নোডের উদাহরণ হল

  1. প্রিন্টার
  2. স্ক্যানার
  3. কম্পিউটার
  4. সব ক-টি

Ans:-4. সব ক-টি

১৪. ডেটা ট্রান্সফারের জন্য যখন ডিজিটাল সিগন্যালের ব্যবহার করা হয়, তখন তাকে ________ বলে

  1. Modulation
  2. Encoding
  3. Decoding
  4. Aওb উভয়ই

Ans:-4. Aওb উভয়ই

১৫. একটি কম্পিউটারের সঙ্গে অন্য একটি কম্পিউটারের ডেটা ট্রান্সফারের জন্য ________ সিগন্যাল ব্যবহৃত হয়

  1. অ্যানালগ
  2. ডিজিটাল
  3. a,b উভয়ই
  4. কোনোটিই নয়

Ans:- 2. ডিজিটাল

১৬. নীচের কোন সিগন্যাল সিস্টেমে ডেটা নষ্ট হওয়ার সম্ভাবনা বেশি ?

  1. Analog
  2. Digital
  3. Hybrid
  4. সব ক-টি

Ans:-2. Digital

১৭. নীচের কোনটি অ্যানালগ সিস্টেমের বিশিষ্ট

  1. শব্দের দ্বারা প্রভাবিত হয় না
  2. সহজলভ্য নয় এবং দামি
  3. Continuous ডেটা
  4. সব ক-টি

Ans:- 4. সব ক-টি

১৮. Digital সিগন্যালের বিশিষ্ট হল

  1. Discrete ডেটা
  2. ডেটা নষ্ট হওয়ার সম্ভাবনা বেশি
  3. Text ডেটা প্রেরণের জন্য বেশি উপযোগী
  4. সব ক-টি                                                                                                                                                                                 Ans:-4. সব ক-টি

১৯নেটওয়ার্ক সিস্টেমে হাফ, ডুপ্লেক্স মোডের উদাহরণ হল

  1. টেলিফোন
  2. রেডিও সম্প্রচার
  3. ওয়াকি-টকি
  4. টেলিভিশন

Ans:-3. ওয়াকি-টকি

২০. নেটওয়ার্ক সিস্টেমে বর্তমানে কোন ধরনের Communication মোড বেশি ব্যবহৃত হয়

  1. Simplex
  2. Full duplex
  3. Half duplex
  4. সব ক-টি

Ans:-2. Full duplex

২১. ফুল ডুপ্লেক্স ডেটা Communication – ের উদাহরণ হল

1. টেলিভিশন

2.ওয়াকিটকি

3.টেলিফোন

4. কোনোটিই নয়

ans:- 3. টেলিফোন

২২. নেটওয়ার্ক সিস্টেমে ডেটা কমিউনিকেশনের কোন মোডে উভয় দিকে একই সময়ে ডেটা প্রবাহিত হয়

  1. Simplex
  2. Complex
  3. Half duplex
  4. Full duplex                                                                                                                                                                                     Ans:- 4. Full duplex

২৩. বিস্তৃতি অনুসারে কত প্রকারের নেটওয়ার্ক দেখতে পাওয়া যায়

a.3

b.4

c.2

d.5

ans:-a.3

২৪. LAN- এর সম্পুর্ন নাম হল

  1. Local area network
  2. Land area network
  3. Light area network
  4. কোনটিই নয়

Ans:- 1. Local area network

২৫. একটি ভৌগোলিক পরিধির মধ্যে এক বা একাধিক বিল্ডিং এর মধ্যে নেটওয়ার্ক স্থাপন করাকে ________ বলে।

1.LAN

2.MAN

3.WAN

4.সব কটি

ans:- 1.LAN

২৬. LAN -এর পরিধি সর্বচ্চ______ কিলোমিটার অঞ্চলের মধ্যে সীমাবদ্ধ থাকে।

a.5

b.1

c.10

d.কোনটিই নয়

ans:- b.1

২৭. LAN -এর বিশিষ্ট হল

  1. বিস্তৃতি খুবই কম
  2. খরচ কম
  3. ত্রুটির পরিমাণ কম
  4. সব কটি

Ans:- 4.সব কটি

২৮. MAN এর সম্পুর্ন নাম হল

  1. metropolitan area network
  2. machine area network
  3. message air network
  4. কোনটিই নয়                                                                                                                                                                            Ans:- 1. metropolitan area network

২৯. একটি নির্দিষ্ট শরহ বা শহরতলির বিভিন্ন স্থানের মধ্যে উপস্থিত নেটওয়ার্ককে_____ বলে।

a.LAN

b.WAN

c.MAN

d.TAN

ans;-c.MAN

৩০. MAN- এর একটি বিস্তৃত একটি শহরের _____ কিমি থেকে______ কিমি পর্যন্ত হয় ।

a.0,500

b.10,120

c.0,10

d.কোনটিই নয়

ans:- b.10,120

৩১. MAN নেটওয়ার্কে ব্যবহৃত কেবল হল

  1. Twisted pair
  2. Coaxial
  3. Optical
  4. Bওc উভয়

Ans:- 4.Bওc উভয়

৩২. WAN-এর সম্পুর্ন নাম হল

  1. Wide air network
  2. Wide area network
  3. Whole area network
  4. কোনটিই নয়

Ans:- 2.Wide area network

৩৩. MAN –এর একটি বিশিষ্ট হল

  1. Man-এর coaxial cable ও optical cable ব্যবহৃত হয়
  2. Man একটি শহরে ১২ কিমি থেকে ১২০ কিমি পর্যন্ত বিস্তৃত
  3. Man এর গ্রাফিক বা চিত্র প্রেরণ সম্ভব নয়
  4. Aওb উভয়

Ans:- 4.Aওb উভয়

৩৪. Wan এর বিশিষ্ট হল

  1. বিশ্বব্যপি নেটওয়ার্ক ব্যবস্থা
  2. বর্তমানে wan সিস্টেমে তথ্য প্রেরণের হার 1GB পর্যন্ত হয়
  3. WAN-এ অনিয়মিতভাবে টপোলজি ব্যবহৃত হয়
  4. সব কটি

Ans:-4. সব কটি

৩৫. WAN সিস্টেমের অসুবিধা হল

  1. খরচ অপেক্ষাকৃত অনেক বেশি
  2. গতিতুলনামুলক ভাবে অনেক কম
  3. ত্রুটি বা ভুলের পরিমাণ বেশি
  4. সব কটি                                                                                                                                                                                        Ans:- 4. সব কটি

৩৬. ইন্টারনেট ব্যবস্থা______ নেটওয়ার্কে অন্তর্গত।

a.MAN

b. WAN

c. LAN

d. সব কটি

ans:- b. WAN

৩৭. নেটওয়ার্কে যুক্ত কম্পিউটার গুলি________ ও_______ পদ্ধতিতে নিজের মধ্যে তথ্যের আদানপ্রদান করে।

  1. Sharing, peer-to-peer
  2. Client-server, sharing
  3. Client-server, peer-to-peer
  4. কোনটিই নয়

Ans:- 3.Client-server, peer-to-peer

৩৮. Client server নেটওয়ার্ক অপারেটিং সিস্টেম হল

  1. LINUX
  2. NOVEL Netware
  3. Windows NT
  4. সব কটি

Ans:-4. সব কটি

৩৯. Client server নেটওয়ার্ক সিস্টেমে উপস্থিত শক্তিশালী কেন্দ্রীয় কম্পিউটারকে________ বলে।

  1. Client
  2. Server
  3. Peer
  4. সব কটি

Ans:- 2. server

৪০. নেটওয়ার্ক সার্ভারের উদাহরণ হল

  1. মেল সার্ভার
  2. ওয়েব সার্ভার
  3. Aওb উভয়ই
  4. কোনটিই নয়

Ans:-3. Aওb উভয়ই

৪১. Client server নেটওয়ার্কের অসুবিধা হল

  1. সেট আপ কস্ট বেশি এবং সেট আপ করা কষ্টকর
  2. Server নষ্ট হলে সমগ্র বিকল হয়ে পড়ে
  3. দক্ষ অ্যাডমিনিস্ট্রেটরের দরকার
  4. সব কটি

Ans:- 4. সব কটি

৪২. নেটওয়ার্ক সিস্টেমে যখন প্রত্যেকটি কম্পিউটারই একদিকে সার্ভার ও অন্যদিকে ক্লায়েন্টের কাজ করে, তখন সেটি___ নেটওয়ার্ক।

a.LAN

b. MAN

c. CLIENT SERVER

d. peer-to-peer

ans:- d. peer-to-peer

৪৩. Peer-to-peer নেটওয়ার্কের বিশিষ্ট নয়

  1. শক্তিশালী সার্ভার দরকার
  2. স্থাপন করা তুলনামুলকভাবে কঠিন
  3. বিশেষ ধরনের নেটওয়ার্ক অপারেটিং সিস্টেম প্রয়োজন
  4. সব কটি                                                                                                                                                                                              Ans:-4. সব কটি

৪৪. Pee-to-peer নেটওয়ার্কের অসুবিধা হল

  1. সর্ব্বচ্চ দশটি কম্পিউটারের বেশি এই নেটওয়ার্কে যুক্ত হতে পারে না।
  2. ডেটার নিরাপত্তা কম
  3. ডেটা ব্যাকাপ নেওয়ার সুবিধা কম
  4. সব কটি                                                                                                                                                                                            Ans:-4. সব কটি

৪৫. নেটওয়ার্ক সিস্টেমে যখন এক সঙ্গে ডেটা প্রেরণ করা হয়, তখন তাকে___ তথ্য পরিবহন  পদ্ধতি বলে।

  1. ধারাবাহিক
  2. সমান্তরাল
  3. পৃথক
  4.  যুগপৎ

Ans:-2. সমান্তরাল

৪৬. সমান্তরাল তথ্য পরিবহন পদ্ধতির বিশিস্ট্য হল

  1. প্রতিটি পিট পরিবহনের জন্য পৃথক পৃথক তার থাকে
  2. গথন সরল ও তথ্য পরিবহনের গতি দ্রুর
  3. অপ্ল দুরত্ব পরিবহনের জন্য এটি আদশ্য
  4. সব কটি

Ans:-4. সব কটি

৪৭.ধারাবাহিক তথ্যের পরিবহন পদ্ধতির বৈশিষ্ট্য হল

  1. একতিমাত্র তার দিয়েই দেতাগুলি পরপর প্রবাহিত বা প্রেরিত হয়
  2. খরচ কম
  3. তথ্য পরিবহণের গতি তুলনামুলকভাবে কম
  4. সব কটি

Ans:- 4. সব কটি

এগুলিও পড়ুন –

নেটওয়ার্কিং ও ইন্টারনেট সম্পর্কিত গুরুত্বপূর্ণ প্রশ্ন ও উত্তর -Part I

নেটওয়ার্কিং ও ইন্টারনেট সম্পর্কিত গুরুত্বপূর্ণ প্রশ্ন ও উত্তর –Part- II

কম্পিউটার নেটওয়ার্কিং ও ইন্টারনেট সম্পর্কিত গুরুত্বপূর্ণ প্রশ্ন ও উত্তর Part -III

নেটওয়ার্কিং ও ইন্টারনেট সম্পর্কিত গুরুত্বপূর্ণ প্রশ্ন ও উত্তর part -IV

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button