Sunday, October 25, 2020
0
0

ফাংশন লেখার নিয়মটি লেখ। ফাংশনের প্রকারভেদ করাে।

  • You must to post comments
0
0

ফাংশন লেখার পদ্ধতি হল –

i, যে সেলে ফাংশন লিখতে হবে সেই সেলটি নির্বাচন বা সিলেক্ট করতে হবে।

ii. এবার ‘=’ চিহ্নটি টাইপ করতে হবে।

ii. এরপর প্রয়ােজন অনুসারে নির্দিষ্ট ফাংশন [ যেমন—গুণের জন্য PRODUCT, যােগের জন্য SUM ইত্যাদি] টাইপ করতে হবে।

iv. এবার প্রথম বন্ধনীর (First bracket) মধ্যে [‘()’] প্রথম সেলের অ্যাড্রেস : শেষ সেলের অ্যাড্রেস টাইপ করতে হবে।

v, এরপর Enter কী প্রেস করলে নির্দিষ্ট সেলে ফলাফল প্রদর্শিত হবে।

MS-Excel-এ বিভিন্ন ধরনের ফাংশন ব্যবহৃত হয় —

** ম্যাথেমেটিক্যাল ফাংশন (Mathematical Function): বিভিন্ন গাণিতিক কাজ করার জন্য এই ফাংশন ব্যবহৃত হয়। যেমন- SUM (), PRODUCT (), ROUND () ইত্যাদি।

** স্ট্যাটিসটিক্যাল ফাংশন (Statistical Function): বিভিন্ন পরিসংখ্যানগত বা রাশিবিজ্ঞান সংক্রান্ত কাজ করার জন্য এই ব্যবহার করা হয় – যেমন -AVERAGE ( ), MAX (), MIN ( ), COUNT () ইত্যাদি।

** ক্যারেক্টার ফাংশন (Character Function): স্ট্রিং বা শব্দ সংক্রান্ত বিভিন্ন কাজ করার জন্য এই ফাংশন ব্যবহৃত হয়। যেমন- CONCATENATE(), UPPER (), LOWER () ইত্যাদি।

** লজিক্যাল ফাংশন (Logical Function) : বিভিন্ন যৌক্তিক কাজ করার জন্য এই ফাংশন ব্যবহৃত হয়। যেমন— IF, COUNTIF (), AND (), OR ( ), NOT ( ) ইত্যাদি।

** ডেট-টাইম ফাংশন (Date-time Function) : সময় ও তারিখ সংক্রান্ত কাজ করার জন্য এই ফাংশন ব্যবহৃত হয়। যেমন-DATE ( ), TIME (), NOW (), TODAY () ইত্যাদি।

 

  • You must to post comments
Showing 1 result
Your Answer
Post as a guest by filling out the fields below or if you already have an account.
Name*
E-mail*
Website