Othersস্বাস্থ্য

সজনা গাছের উপকারী গুণাবলি জেনে নিন

সজনা গাছের উপকারী: সজনে (বৈজ্ঞানিক নাম: Moringa oleifera) হচ্ছে Moringaceae পরিবারের Moringa গণের একটি বৃক্ষ জাতীয় গাছ। সজনের কাঁচা লম্বা ফল সবজি হিসেবে খাওয়া হয়, পাতা খাওয়া হয় শাক হিসেবে। খরা সহিষ্ণু ও গ্রীষ্মপ্রধান অঞ্চলের একটি উদ্ভিদ।[৩] ডাল ও বীজের মাধ্যমে বংশবিস্তার করলেও আমাদের দেশে সাধারণত ডালের মাধ্যমে বা অঙ্গজ জননের মাধ্যমে বংশবিস্তার করানো হয়। গ্রীষ্মকাল বিশেষত এপ্রিল মাসের মাঝামাঝি থেকে শেষ পর্যন্ত ডাল রোপণের উপযুক্ত সময়। Drumstick Tree (সজনা) যমন অদ্ভুদ নাম তেমনি অদ্ভুদ তার গুণাবলি।

সজনা গাছের উপকারী গুণাবলি জেনে নিন

Drumstick Tree যমন অদ্ভুদ নাম তেমনি অদ্ভুদ তার গুণাবলি রয়েছে, যাকে আমরা বাঙালিরা সজনে গাছ বলে থাকি।আমরা সাধারনত সজনাকে সাগ হিসেবে খেয়ে আসেছি বহু জুগ ধিরেই, কিন্তু আর ভেসজ গুন আজও আমাদের কাছে অজানা। শুধুমাত্র এর পাতা নয় সজনা ডাটা ও গাছের ছালেরও অনেক গুরুত্য আছে। আমাদের রোজকার জীবনে প্রায় প্রতিটা দিন খাদ্য তালিকায় সজনা রাখা উচিত।এর কয়েকটি গুন সমন্ধে আলোচনা করা হল-

  1. সজনার ডাটা খেতে কম বেশী আমাদের অনেকেরি ভালো লাগে, আটি খেলে আমাদের শরীরে ক্লেস্ট্রলের মাত্রাকে নিয়ন্ত্রনে রাখে, আবার হাই ব্লাড প্রেসারকেও নিয়ন্ত্রনে আনতে সাহায্য করে।
  2. সজনার ডাটা থেকেও খুবই কার্যকর হল সজনার পাতা, সারা বছর ডাটা পাওয়া সমভব নয় তাই সজনার পাতাকে সাক হিসাবে বা পাতা রস করে খেলেও কলেস্ট্রল ও হাই ব্লাড প্রেসারকেও নিয়ন্ত্রনে রাখা যায়।
  3. সজনার কয়েকটা পাতা জলে কিছুক্ষন ফুটিয়ে নিয়ে সেই জল দিয়ে যদি কুলকুচি করা যায় তাহলে দাতের বিভিন্ন সমস্যা যেমন মারিফোলা , মারি থেকে রক্ত পরা বন্ধ হয় এবং ব্যথা হলে তা কমে যায়।
  4. পেটের নানা রকম সমস্যা যেমন পেট ব্যথা, গ্যাস্টিক, বদ হজম থেকে রক্ষা পেতে সজনা পাতার ভাজা ও তরকারি আনেক উপকারি।
  5. যাদের বাতের সমস্যা রয়েছে তারা সজনা গাছের ছাল কয়েক চামচের মতন রোজ খেলে অনেকটা আরাম পাওয়া যেতে পারে।

নিয়মিত সজনা সাগ ও তরকারি হিসেবে খেলেও অনেক উপকার পাওয়া যায়।

এটিও পড়ুন – 1000+ এক কথায় প্রকাশ অ থেকে ঔ পর্যন্ত

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button