পত্র রচনা

মাধ্যমিক পরীক্ষার পর ভবিষ্যৎ কর্মপন্থা কি তাহা জানিতে চাহিয়া পিতার নিকট পত্র লিখ ।

মাধ্যমিক বা উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষার পর তোমার ভবিষ্যৎ কর্মপন্থা কি হইবে তাহা জানিতে চাহিয়া তোমার পিতার নিকট একখানা পত্র লিখ

মাধ্যমিক বা উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষার পর তোমার ভবিষ্যৎ কর্মপন্থা কি হইবে তাহা জানিতে চাহিয়া তোমার পিতার নিকট একখানা পত্র লিখ । অথবা মাধ্যমিক পরীক্ষার পর ভবিষ্যৎ কর্মপন্থা কি হইবে তাহা জানিতে চাহিয়া পিতার নিকট পত্র লিখ

ভবিষ্যৎ কর্মপন্থা জানিয়ে বাবাকে পত্র

ময়মনসিংহ

১৮ই জানুয়ারি, ২০২০

শ্রদ্ধেয় পরমপূজনীয় বাবা,

আমার শত সহস্র প্রনাম নিবেন। গতকাল আপনার একখানা আর্শীবাদ পত্র পাইয়া বাটীস্থ সকল খবর অবগত হইয়াছি। বর্তমানে মা’র শরীর কেমন আছে, তাহা পত্রোত্তরে লিখিয়া জানাইবেন।

শুনিতেছি, পনর দিনের মধ্যেই আমাদের মাধ্যমিক পরীক্ষার ফল বাহির হইবে। আশা করি ঈশ্বরের আশীর্বাদে প্রথম বিভাগে উত্তীর্ণ হইতে পারিব।

পরীক্ষার ফল প্রকাশিত হইবার সঙ্গে সঙ্গেই আমাকে কোন কলেজে ভর্তি হইতে হইবে। কারণ, বিলম্ব হইলে কলেজে ভর্তি হওয়া দুঃসাধ্য হইয়া পড়িবে। সম্প্রতি বহু ছাত্র পাস করিয়া বাহির হইতেছে। কম্পিউটারের মাধ্যমে (অনলাইনে) বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির ব্যবস্থা হয়। না জানি কোন কলেজে কি ব্যবস্থা?

আপনি একবার বলিয়াছিলেন ভবিষ্যতে আমাকে ‘ল’ (আইন) পড়াইবেন। তাহাতে খ্যাতি ও অর্থ উভয় দিকেই লাভের সম্ভাবনা। তাহা হইলে কলেজের ‘কলা বিভাগে’ ভর্তি হওয়া উত্তম। কিন্তু ওকালতির প্রতি আমার বিশেষ ঝোক নাই। কারণ, দেশ এখন স্বাধীন, ওকালতি করিবার জন্য আইন পড়া আমার নিকট ছোট আদর্শ বলিয়া মনে হয়; জাতিগঠন ও জনসেবায় উকিলের চেয়ে ডাক্তারের স্থান ঊর্ধ্বে। অতএব, ডাক্তারী পড়ার ইচ্ছা আমার প্রবল।

এইজন্য আমি ভালো সরকারী মেডিকেল কলেজে ভর্তি হইতে চাই। উচ্চ মধ্যমিকে ‘বিজ্ঞান বিভাগে ভর্তি হইলে উচ্চ মাধ্যমিক পাস করিবার পর মেডিক্যাল কলেজে ভর্তি হইতে পারিব। পত্রদ্বারা এ বিষয়ে আপনার মতামত জানাইবেন। মা-কে আমার সশ্রদ্ধ প্রনাম এবং ছোট বোনকে আমার ভালবাসা জানাইবেন।

ইতি

আপনার স্নেহধন্য

আশিস দাস

প্রেরক

আশিস দাস

মালদা,

ডাকটিকেট

প্রতি,

কমল দাস

রায়গঞ্জ, উত্তর দিনাজপুর, ৭৩৩১২৯

এটিও পড়ুন –বিদ্যালয়ের একজন শিক্ষকের অবসর গ্রহণ উপলক্ষে একটি মানপত্র রচনা কর।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button