Sunday, October 25, 2020
রান্নাঘররিসেপি

পাকা কাঁঠাল সংরক্ষণ এর সহজ পদ্ধতি

পাকা কাঁঠাল সংরক্ষণঃ  কাঁঠাল গ্রীষ্ম কালীন ফল। ফলের তালিকায় অনেকের কাঁঠাল রয়েছে। কিছু কিছু কাঁঠাল আকারে বড় হওয়ায়, একসাথে পুরো কাঁঠাল মাঝে মধ্যে খাওয়া সম্ভব হয় না। তাইতো কখনো কখনো পাকা কাঁঠাল সংরক্ষণের প্রয়োজন দেখা দেয়। এই মৌসুমে পাকা কাঁঠাল থাকে বাজারে। সারা বছর আর দেখা মিলে না এই ফলের। অনেকে সারা বছর খেতে ভালো বাসেন এই ফল। কিন্তু অন্যন্য ফলের মতো এই ফলের আর দেখা মেলে না। সারা বছর কাঁঠাল রেখে খেতে চাইলে এখনই সংরক্ষণ করুন ফ্রিজে।

পাকা কাঁঠাল সংরক্ষণ এর সহজ পদ্ধতি

যেভাবে সংরক্ষণ করবেন কাঁঠালঃ

সংরক্ষণের প্রথম পদ্ধতিঃ খুব নরম কাঁঠাল নয়, সংরক্ষণের জন্য একটু শক্ত ধরনের কাঁঠাল নিন। একটি বাটিতে পেপার টাওয়েল বিছিয়ে একটি একটি করে কাঁঠালের কোয়া রাখুন। বাটি পূর্ণ হয়ে গেলে আরেকটি পেপার টাওয়েল দিয়ে ঢেকে বাটির ঢাকনা লাগিয়ে দিন। নরমাল ফ্রিজে রেখে দিন কাঁঠালের বাটি সহ। এরপর মাঝে মাঝে খেতে চাইলে, অবশ্যই বাটি থেকে কাঁঠাল বের করার সময় চামচ ব্যবহার করবেন।

সংরক্ষণের দ্বিতীয় পদ্ধতিঃ সারাবছর জুড়ে কাঁঠাল খেতে চাইলে ডিপ ফ্রিজে রাখুন। এজন্য কাঁঠালের কোয়া থেকে বিচি ছাড়িয়ে একটি বাটিতে নিন। পাতলা পলিথিনে বিচি ছাড়ানো কাঁঠাল রাখুন। লাইন লাইন করে রাখবেন কাঁঠাল কোয়া। একটির উপর আরেকটি কোয়া রাখবেন না। পলিথিনের মুখ ভালভাবে বন্ধ করে দিন টেপ অথবা পিন দিয়ে। ব্যাগ রেখে দিন ডিপ ফ্রিজে। যখন খাবার ইছে হবে তখন বের করে খান পাকা কাঁঠাল।

কাঁঠালের পুষ্টি

কাঁঠালের মধ্যে আছে থায়ামিন,রিবোফ্লাভিন, ক্যালসিয়াম, পটাসিয়াম, আয়রন, সোডিয়াম, জিঙ্ক এবং নায়াসিনসহ বিভিন্ন প্রকার পুষ্টি উপাদান। অন্যদিকে কাঁঠালে প্রচুর পরিমাণে আমিষ, শর্করা ও ভিটামিন থাকায় তা মানব দেহের জন্য বিশেষ উপকারী।

এগুলিও পড়ুন

1 Comment

Leave a Response