ভ্রমণপণ্য সমূহবিনোদন

ভারতবর্ষের বিভিন্ন স্থানে বিভিন্ন দেবদেবীর মন্দির

ভারতবর্ষের বিভিন্ন স্থানে বিভিন্ন দেবদেবীর মন্দির নিয়ে এই পোষ্ট। আপনারা যারা মন্দির দর্শন করতে ভালো বাসেন ভারতবর্ষের বিভিন্ন স্থানে বিভিন্ন দেবদেবীর মন্দির এই পোষ্টি তাদের খুব কাজে আসবে। নিম্নে ভারতবর্ষের বিভিন্ন স্থানে বিভিন্ন দেবদেবীর মন্দির এর তালিকা দেওয়া হল। এটিও পড়ুন – ভারতের দর্শনীয় স্থান সমূহ কোন রাজ্যে কী কী

ভারতবর্ষের বিভিন্ন স্থানে বিভিন্ন দেবদেবীর মন্দির

মা লক্ষ্মী সমেত তিনটি বিখ্যাত শায়িত বিষ্ণুর প্রাচীন মন্দির। ত্রিরঙ্গ (১) আদিরঙ্গ, শ্রী রঙ্গনাথস্বামী মন্দির (শ্রীরঙ্গপত্তন, মহীশূরের নিকট, কর্ণাটকে), (২) মধ্যরঙ্গ, শ্রী রঙ্গনাথস্বামী মন্দির (কর্ণাটকের মাডুরের নিকট বিখ্যাত শিবনসমুদ্রম জলপ্রপাতের কাছে), ৩) অন্তরঙ্গ, শ্রী রঙ্গনাথস্বামী মন্দির (তামিলনাড়ুর তিরুচিরাপল্লীর সন্নিকটে, মন্দির শহর শ্রীরঙ্গম অবস্থিত পৃথিবীর সর্ব বৃহৎ মন্দির)। এখানে আছে ২২ ফুট উচ্চ সর্ববৃহৎ গরুড়ের মূর্তি। এই তিনটি মন্দির কাবেরী নদী ও তার শাখা নদী দ্বারা পরিবেষ্টিত দ্বীপের মধ্যে অবস্থিত। ভক্ত কাবেরীকে শ্রীবিষ্ণু থা দিয়েছিলেন যে, তিনি তার তীরেই থাকবেন।

পঞ্চভূত শিব মন্দির

(১) বায়ু, তিরুপতি থেকে ৩৫ কি.মি. দূরে শ্রীকালাহস্তীশ্বর মন্দির। ২) মাটি, তামিলনাড়ু কাঞ্চীপুরমের একাম্বরেশ্বর মন্দির। (৩) অগ্নি, তামিলনাড়ুর তরুভান্নামালাইয়ের অরুনাচলে শ্বর মন্দির। (৪) জল, তিরুচিরাপল্লী শ্রীরঙ্গম অবস্থিত জম্বিকেশ্বর মন্দির ও (৫) আকাশ, তামিলনাড়ুর চিদাম্বরমের চিদাম্বরম নাথ মন্দির।

ষড়মুরুগা। ভগবান কার্তিকের সব থেকে বেশী মন্দির তামিলনাড়ুতেই আছে। তার মধ্যে ছয়টি বশী বিখ্যাত, এগুলি ষড়মুরুগা নামে বিখ্যাত। এগুলি হল, (১) সুব্রহ্মণ্যস্বামী মন্দির, তিরুত্তানি, চেন্নাই থেকে ১১০ কি.মি. উত্তরে অন্ধ্রের সীমানার কাছে। (২) দণ্ডায়ুধপাণি মন্দির, মাদুরাইয়ের ১০০ কি.মি. উত্তরে, পাহাড়ের ওপরে। (৩) বালসুব্রহ্মণ্য (শিশু কার্তিক), তিরুচেন্দুর, এটি দক্ষিণ পশ্চিম তামিলনাড়ুর সমুদ্রতীরে অবস্থিত।(৪) স্বামীনাথ, কুত্ভোকোনমের কাছে স্বামিমালাই অবস্থিত, এটি ভগবান কার্তিকের জন্মস্থান। (৫) সম্মুগম (সম্মুখম), এটি একটি গুহা মন্দির ও মাদুরাইয়ের ৩৫ কি.মি. দূরে তিরুপারণকুন্দ্রমে অবস্থিত, এখানে উনি দেবরাজ ইন্দ্রের কন্যা দেইভানাইকে বিয়ে করেন ।মুরুগন, পালামুথির- চোলাইতে, এটিও মাদুরাইয়ের নিকট। এখানে উনি সাধিকা আভাইয়ারকে দর্শন দিয়েছিলেন।

এটিও পড়ুন – মথুরা বৃন্দাবন ভ্রমন গাইড, Latest 2020

ত্রিসুব্রহ্মণ্য। কর্ণাটকের তিনটি কার্তিকের প্রাচীন তীর্থস্থান। এগুলি হল, (১) কুসুব্রহ্মণ্য, ব্যাঙ্গালোরের কাছে, (২) ঘাটি সুব্রহ্মণ্য, ব্যাঙ্গালোরের ৬০ কি.মি. উত্তরে, ও (৩) পাভাগাড়া সুত্রহ্মণ্য,. এটি বাঙ্গালাের থেকে ২৩০ কি.মি. উত্তরে পাভাগাডাতে অবস্থিত। এখানে কার্তিক সর্প রূপে পূজিত হন।

বিশ্বের একমাত্র শায়িত শিবের মন্দির-অস্ত্রের চিত্তুর জেলায় সুরুটাপল্লির কাছে পল্লিকোণ্ডেশ্বর মন্দির। এখানে উনি ভক্তদের সব প্রার্থনা পুর্ণ করে থাকেন। কর্ণাটকের কোলার জেলায় অবস্থির কোটালিঙ্গেশ্বরে অবস্থিত ১০৮ ফুট উচ্চ সর্ববৃহৎ শিবলিঙ্গ। দক্ষিণ বদ্রী, তিরুনারায়ণ মন্দির। কর্ণাটকের মহীশুর থেকে ৬০ কি.মি. দুরে মেলকোটে অবস্থিত।

বিখ্যাত কয়েকটি বালাজী মন্দির

(১) বীরাভেট শ্রীনিবাস মন্দির, অরে। বিশাখাপট্টনমে অবস্থিত। (২) চিক্কা তিরুপতি, কর্ণাটকের কোলার জেলায় অবস্থিত। (৩) বাঙ্গারু তিরুপতি,কর্ণাটক জেলার জেলার বেথামঙ্গলা নামক স্থানে শ্রীলক্ষ্মী ভেঙ্কটেশ্বরের মন্দির। ষড়রিপু থেকে মুক্তি পাবার জন্য ছয়টি ছিদ্র দিয়ে দর্শন করতে হয়। (৪) তিরুমলে, কর্ণাটকের রাজধানী বাঙ্গালােরের কাছে মাগাড়ি রােডের ওপরে অবস্থিত মন্দির। (৫) বৈকুণ্ঠ শ্রীনিবাস, বাঙ্গালাের-মহীশূর হন। রােডের কাছে শ্রীরঙ্গপটনার আগে বাবুরায়ানকোল্লালুর নিকট। (৬) বিলিগিরিরঙ্গস্বামী মন্দির, মহীশুর থেকে ৯০ কি.মি. দূরে বিলিগিরিরঙ্গনবেট্টা পাহাড়ের ওপরে ৫০০০ ফুট উঁচুতে অবস্থিত। পুরাকালে ঋষি বশিষ্ঠ দ্বারা উপাসিত। (৭) ওপ্লিলিআপ্পান- স্বামীর মন্দির, এঁকে ভেঙ্কটচলপতিও বলা হয়ে থাকে। তামিলনাড়ুর কুম্ভোকোনমের কাছে তিরুনাগেশ্বরণে অবস্থিত। যারা ভীড়ের জন্য তিরুপতিতে দর্শন করতে পারেন না, তাঁরা এখানে আসেন। বুধবারে এই মন্দিরে সন্তান গােপাল’ কোলে নিয়ে পুজো করলে নিঃসন্তান নারীর সন্তান হয়।

এটিও পড়ুন – বিনসন অভয়ারণ্য ভ্রমণ গাইড – Binsar Travel Guide

নবগ্রহ মন্দির

(১) সূর্য (সূর্যনার মন্দির) তামিলনাড়ুর কুম্ভকোনমের কাছে। (২) চন্দ্র, তিঙ্গালুর, কুম্ভকোনমের কাছে। (৩) মঙ্গল, বৈদ্যেশ্বর মন্দির, কুম্ভকোনম থেকে ৩০ কি.মি. দূরে। (৪) বুধ, তিরুভেঙ্গডু, তাঞ্জাভুরের কাছে। (৫) বৃহস্পতি, তামিলনাডুর আলাঙ্গুডি, তিরুভারুর জেলায় অবস্থিত। (৬) শুক্র, কাঞ্জানুর, এটি কুম্ভকোনমের কাছে অবস্থিত। (৭) শনি, পণ্ডিচেরীর তিরুনাল্লার জেলায় অবস্থিত। (৮) রাহু, তামিলনাডুর তিরুনাগেশ্বরণে অবস্থিত। (৯) কেতু, কেজুপেরুমপালমের মন্দির, এটি তামিলনাড়ুর তাঞ্জাভুর জেলায় অবস্থিত এছাড়া কর্নাটকের পাভাগাডাতেও শনিদেবের মন্দির আছে

প্রাচীন বিষ্ণু মন্দির

(১) বরাহ লক্ষ্মী নরসিংহ মন্দির, সিমহাচলম, অন্ধ্র প্রদেশের বিশাখাপত্তনমের কাছে অবস্থিত। (২) শ্রীলক্ষ্মী নরসিংহ ও যােগনরসিংহের মন্দির, ব্যাঙ্গালোর থেকে ৬০ কি.মি. দুরে দেবরায়ানদুর্গ পাহাড়ে অবস্থিত। পুরাকালে রাজা অম্বরীশ ও ভগবান ব্রহ্মা দু উপাসিত।(৩) পুণ্ডরীকাক্ষের মন্দির, এটি একটি প্রাচীন বিষ্ণু মন্দির ও তামিলনাড়ুর তিরুচির কাছে অবস্থিত।(৪) শ্রী লক্ষ্মী বরদরাজস্বামী মন্দির, এটি তামিলনাড়ু কাঞ্চীপুরম অবস্থিত। এখানে গিয়ে সােনার টিকটিকি ছুঁয়ে আসতে হয়, তাহলে গায়ে টিকটিকি পড়লে কোনাে দোষ হয় না। (৫) ভ বরাহের মন্দির, এটি তামিলনাড়ু তাঞ্জাভুরের কাছে শ্রীমুস্নমে অবস্থিত। (৬) শ্রী লক্ষ্মী হয়গ্রীব মন্দির, কুডালুরের কাছে অবস্থিত। তাকে জ্ঞানের দেবতা বলেও পূজা করা হয়। ছাত্র-ছাত্রীরা তাকে পূজা করে থাকেন।

প্রাচীন সরস্বতীর মন্দির

১) জ্ঞান সরস্বতী মন্দির, এটি তেলেঙ্গানার নিজামাবাদ জেলার বাসারাতে অবস্থিত। (২) সরস্বতী মন্দির, এটি তামিলনাড়ুর কোথানুরে অবস্থিত, এটি মান্নারগুডিতে অবস্থিত। এখানেও ছাত্র-ছাত্রীরা প্রার্থনা করেন।

বিখ্যাত কয়েকটি দেবী মন্দির

(১) মুকাম্বিকা, উপকূলবর্তী কর্ণাটকের কোলুর নামক স্থানে অবস্থিত। (২) চামুণ্ডেশ্বরীদেবীর মন্দির, মহীশূরের চামুণ্ডী পাহাড়ে অবস্থিত। প্রচলিত বিশ্বাস অনুসারে মা দুর্গা এখানেই মহিষাসুরকে বধ করেন।(3) শৃঙ্গেরীর সারদাম্বা ও দুর্গা মন্দির, কর্ণাটকের শৃঙ্গেরীতে অবস্থিত। (৪) কামাক্ষীআম্মা মন্দির, অন্ধ্রের নেল্লোরে অবস্থিত। (৫) মাসানি আম্মার এটি ভগবান বিষ্ণুর হয়গ্রীব অবতারের মন্দির। তামিলনাডুর তিরুবহীন্দ্রপুরমে অবস্থিত। এটি মন্দির, তামিলনাড়ু কোয়েম্বাটুর কাছে পালাচ্চিতে অবস্থিত বিশ্বের একমাত্র শায়িত দেবীর মন্দির। (৬) অন্নপূর্ণেশ্বরীদেবীর মন্দির, কর্ণাটকের চিকমাগালুর জেলার হােরানাডুতে অবস্থিত।(৭) বনশঙ্করীর মন্দির, এটি উত্তর কর্ণাটকের বাগালকোট জেলায় অবস্থিত।

বিষ্ণু ও শিবের মিলিত রূপ হরিহরের মন্দির, কর্ণাটকের হরিহরে। বাঙ্গালাের থেকে ২২০ কি.মি. দূরে হরিহরে অবস্থিত।শঙ্কর নারায়ণ মন্দির, কর্ণাটকের উডুপির কাছে। এখানে শিব ও বিষ্ণু একসাথে লিঙ্গ রূপে পূজিত হন। এটি পরশুরাম ক্ষেত্র রূপে পরিচিত।

কয়েকটি প্রাচীন রামের মন্দির

(১) কাঞ্চীপুরমের বিজয় রাঘব মন্দির, শ্রীরাম এখানে পক্ষীরাজ জটায়ুর সৎকার করেছিলেন। (২) কাবেটিকোণ্ডার, বসে থাকা রামের মন্দির, অঞ্জের চিত্তুর জেলায় অবস্থিত। (৩) ধর্ভশয়নম, বিশ্বের একমাত্র শায়িত রামের মন্দির,
এটি রামেশ্বরমের কাছে অবস্থিত। মা সীতাকে খোঁজবার পরে শ্রীরাম ক্লান্ত হয়ে শুয়ে পড়েন ও লক্ষ্মণ অনন্তনাগ হয়ে যান, তাঁর ওপরেই শ্রীরাম বিশ্রাম করেন। (৩) কোদণ্ড রামের মন্দির, এগুলি তিরুপতি ও কর্ণাটকের মধুগিরি, চিকমাগালুর ও হাম্পিতে অবস্থিত। হাম্পিতে ভগবান শ্রীরাম সুগ্রীবের অভিষেক করেছিলেন। (৪) যােগারামা মন্দির, এটি তামিলনাডুর নেদুনগুণমের কাছে তিরুভান্নামালাইয়ে নিকটে অবস্থিত। এখানে ভগবান শ্রীরাম যােগাসনে দেবী সীতা আর লক্ষ্মণের সাথে বসে আছেন।

কয়েকটি প্রাচীন কৃষ্ণের মন্দির

(১) শ্ৰীপার্থসারথীস্বামী মন্দির, একমাত্র মন্দির যেখানে ভগবান শ্রীকৃষ্ণ বৃদ্ধরূপে, তাঁর তিন পত্নী, পুত্র ও পৌত্রদের সাথে পূজিত হন। এটি চেন্নাইতে সমুদ্রতীরে অবস্থিত।(২) আদিকেশব পেরুমাল, একমাত্র শায়িত কৃষ্ণের মন্দির, এটি কাঞ্চীপুরম অবস্থিত।(৩) সৌম্য চেন্নাকেশব মন্দির, এটি ব্যাঙ্গালোর থেকে ৫০ কি.মি. উত্তরে বিজয়পুরাতে অবস্থিত। পাণ্ডব ভ্রাতা অর্জুন এটি প্রতিষ্ঠা করেন। (৪) অপ্রমেয় স্বামী মন্দির, এটি বাঙ্গালাের-মহীশূর রােডের নিকট মাডুরের কাছে অবস্থিত। এখানে শ্রীকৃষ্ণ নাদুগােপাল রূপে পূজিত হন।(৫) শ্রীগুরুভায়ুর কৃষ্ণ, এটি কেরালার গুরুভায়ুর অবস্থিত।

মা শীতলার মন্দির

মা শীতলার মন্দির মারি আম্মার মন্দির, সময়পুরম, তিরুচির কাছে। মারিআম্মার মন্দির, থেল্লাকুলাম, মাদুরাইতে অবস্থিত সবচেয়ে বড় নাগদেবতার মন্দির—তামিলনাড়ু নাগেরকোয়েলে অবস্থিত। নিঃসন্তান দম্পতিরা এখানে প্রার্থনা করেন। এছাড়া কর্ণাটকের বিদুরাশ্বত্থের নাগ মন্দিরে ও ঘাটিসুব্রহ্মণ্যের কাছে নাগদেবতার মন্দির। নাগদেবতার মূর্তি প্রতিষ্ঠা করলেও সন্তান লাভ হয়। শেষােক্ত দুটি জায়গা বাঙ্গালাের থেকে ১০০ ও ৬০ কি.মি. দূরে অবস্থিত।

বিয়ের মন্দির

কোনাে কারণে যাদের বিয়ে হচ্ছে না, তারা এই দুটি মন্দিরে প্রার্থনা করতে পারেন। এ দুটি মন্দির হল, (১) নিত্যকল্যাণ পেরুমাল, এই বরাহ মন্দিরটি চেন্নাইয়ের কাছে মহাবলীপুরম রােডের ওপরে অবস্থিত, অন্যটি হল, (২) শ্রীউদ্ধবনাথেশ্বর মন্দির, এই শিবের মন্দিরটি তাঞ্জাভুর থেকে ৪০ কি.মি. উত্তরে তিরুমানাঞ্চেরীতে অবস্থিত। বিশ্বাস অনুসারে এখানে প্রার্থনা করলে বিয়ে অবশ্যম্ভাবী।

এটিও পড়ুন-  কান্তজীউ মন্দির এর জানা অজানা

 

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button